rss
প্রকাশ : ০৬ জুলাই ২০১৩, ১১:১৮:৫৭ | আপডেট : ০৬ জুলাই ২০১৩, ১২:২০:১১অ-অ+
printer

রাজ্জাকদের বাংলাদেশে খেলতে দেবে না পিসিবি

সঞ্জয় সাহা পিয়াল


ইটের জবাব পাটকেল মেরে দিয়েছিল বাংলাদেশ। পাকিস্তান সফরে বাংলাদেশ না যাওয়ায় পিসিবি বিপিএলে তাদের কোনো ক্রিকেটারকে আসতে দেয়নি, জবাবে পাকিস্তানিদের ছাড়াই বিপিএল আয়োজন করে বিসিবি পাকিস্তান সফরে না যাওয়ার দায় থেকে মুক্তি পেয়ে হাঁফ ছাড়ে।রাজ্জাকদের বাংলাদেশে খেলতে দেবে না পিসিবি



তবে শোধ-বাদের অঙ্কটা এখনও ভোলেনি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। আর তাই যখন প্রিমিয়ার লীগ খেলতে আসার জন্য আবদুল রাজ্জাক, শোয়েব মালিক, আহমেদ শেহজাদ, মোহাম্মদ ইউসুফ, মোহাম্মদ সামিরা পিসিবির কাছে আবেদন করেন তখন তাদের সাফ 'না' বলে দেয় পিসিবি।



২৯ আগস্ট থেকে শুরু হতে যাওয়া ঢাকা প্রিমিয়ার লীগের বেশ কিছু বড় ক্লাব পাকিস্তানি কিছু ক্রিকেটারকে খেলানোর আগ্রহ দেখায় এবং বিসিবির সঙ্গে আলোচনা করেই ক্লাব কর্মকর্তারা নিশ্চিত হন যে, পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের ঢাকা লীগে খেলানোয় কোনো আপত্তি নেই বোর্ডের। বিপিএলে কোনো পাকিস্তানি ক্রিকেটার না নিলেও বিসিবি এবার পরিষ্কার জানিয়ে দেয়, ঢাকা প্রিমিয়ার লীগে অবশ্যই পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের খেলানো যাবে।





কিন্তু সম্পর্ক উন্নয়নে বিসিবির এই বাড়িয়ে দেওয়া হাত প্রত্যাখ্যান করেছে পিসিবি। পাকিস্তানের এক্সপ্রেস নিউজের ক্রীড়া সাংবাদিক ইউসুফ আনজুম সমকালকে জানান, পুরনো সম্পর্কের রেশ এখনও কাটেনি পিসিবিতে। 'পাকিস্তানের বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার ঢাকা প্রিমিয়ার লীগ খেলার জন্য পিসিবির কাছে এনওসি লেটার চেয়ে আবেদন করেছিলেন। কিন্তু পিসিবি থেকে তাদের বাংলাদেশে না খেলার জন্য বলে দেওয়া হয়েছে।'



পাকিস্তানি ওই সাংবাদিক জানান, এ সিদ্ধান্ত শোনার পর আবদুল রাজ্জাক পিসিবি কর্মকর্তাকে জিজ্ঞাসা করেছিলেন, কেন তাকে বাধা দেওয়া হচ্ছে? 'বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে আমাদের কিছু অমীমাংসিত ইস্যু রয়েছে। সেগুলো না মিটলে কোনো পাকিস্তানি ক্রিকেটারকে বাংলাদেশে খেলতে যেতে দেবে না পিসিবি।'



কিন্তু যে ইস্যু তৈরি হয়েছিল পিসিবির সাবেক চেয়ারম্যান জাকা আশরাফ আর বিসিবির সাবেক সভাপতি আ হ ম মোস্তফা কামালের মধ্যে, তাদের কেউই এখন ক্ষমতায় নেই। পিসিবির নতুন চেয়ারম্যান হয়েছেন নিজাম শেঠি, বিসিবিতেও রয়েছেন নাজমুল হাসান পাপন। তাহলে কেন নতুন করে সম্পর্ক উন্নয়নের ব্যাপারে চিন্তা করা যায় না?



পাকিস্তানি সাংবাদিক আনজুম নিজেই এ প্রশ্ন করেছিলেন পিসিবির ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তাকে। যার উত্তর শুনে আনজুমকেও হতাশ হতে হয়েছে_ 'চেয়ারম্যান পরিবর্তন হলেও পাকিস্তানি ক্রিকেট বোর্ড তাদের আগের সিদ্ধান্তেই অনড় রয়েছে। বাংলাদেশ যদি পাকিস্তান সফরে না আসে তাহলে কোনো পাকিস্তানি ক্রিকেটারকে বাংলাদেশে খেলতে দেবে না পিসিবি। পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের নিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড আর্থিকভাবে অনেক লাভবান হয়েছে। সেটা আর পাকিস্তান হতে দেবে না।'





বাংলাদেশকে নিয়ে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের মধ্যে জমে থাকা আক্রোশ ফের বেরিয়ে এসেছে ঢাকা প্রিমিয়ার লীগ ঘিরে। অথচ শোয়েব মালিক, আবদুল রাজ্জাক, মোহাম্মদ সামিদের মতো ক্রিকেটারদের মন পড়ে আছে এই লীগে। 'রাজ্জাক নিজেও বেশ হতাশ। একে তো আইপিএলে কোনো পাকিস্তানি অংশ নিতে পারে না। তার ওপর আবার বিপিএলের রাস্তাও বন্ধ করে দিল পিসিবি। এখন ঢাকা লীগেও যদি না খেলতে দেওয়া হয়, তাহলে চলবে কী করে।'



পাকিস্তানি সাংবাদিক আনজুমের কাছেই এ ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন রাজ্জাক।যার অর্থ, ২৫ জুলাই ঢাকা প্রিমিয়ার লীগের দলবদলে কোনো পাকিস্তানি ক্রিকেটারকে অংশ নিতে দেখা যাবে না। বিদেশি ক্রিকেটারদের কোটায় ক্লাবগুলোকে তাই ভরসা করতে হবে ভারত ও লংকান ক্রিকেটারদের ওপরই।


মন্তব্য
সর্বশেষ ১০ সংবাদসর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক : গোলাম সারওয়ার
প্রকাশক : এ কে আজাদ
ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫  ৮৮৭০১৯৫
ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১  ৮৮৭৭০১৯৬
বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০
১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮
powered by :
Copyright © 2014. All rights reserved